চন্দ্রনাথ পাহাড় নিয়ে ধর্মীয় উসকানিমূলক পোস্ট, গ্রেফতার ২ মাদরাসা ছাত্র চন্দ্রনাথ পাহাড় নিয়ে ধর্মীয় উসকানিমূলক পোস্ট, গ্রেফতার ২ মাদরাসা ছাত্র Full view

চন্দ্রনাথ পাহাড় নিয়ে ধর্মীয় উসকানিমূলক পোস্ট, গ্রেফতার ২ মাদরাসা ছাত্র

সীতাকুণ্ডের চন্দ্রনাথ পাহাড়ে গিয়ে ধর্মীয় উসকানিমূলক কর্মকাণ্ডের ছবি ফেসবুকে পোস্ট করার অভিযোগে দুই মাদ্রাসাছাত্রকে গ্রেফতার করেছে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) রাতে কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার গৌরীপুর থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশ জানিয়েছে, সনাতন ধর্মাবলম্বীদের তীর্থস্থান হিসেবে পরিচিত চন্দ্রনাথ পাহাড়ে গিয়ে আজান দেওয়ার ছবি তুলে ফেসবুকে উসকানিমূলক পোস্ট দেওয়ায় দুই যুবককে গ্রেফতার করা হয় । সেখানে ইসলামের পতাকা ওড়ানোর ঘোষণা দিয়ে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরির চেষ্টা করা হয়।

গ্রেফতার দুইজন হলেন—মুহাম্মাদ শিব্বির বিন নজির (২১) ও রিফাত খন্দকার (২১)। তারা দুইজন ঢাকার মোহাম্মদপুরের একটি মাদরাসার শিক্ষার্থী। তাদের মধ্যে একজন ‘মুহাম্মাদ শিব্বির বিন নজির’ নামে একটি ফেসবুক আইডি থেকে গত ২৭ অগাস্ট সীতাকুন্ডের চন্দ্রনাথ পাহাড়ের চূড়ায় সনাতনী সম্প্রদায়ের তীর্থস্থান হিসেবে পরিচিত চন্দ্রনাথ পাহাড়ে গিয়ে আজান দেওয়ার ছবি তুলে ফেসবুকে উস্কানিমূলক পোস্ট দেন। অন্যজন সেটি শেয়ার করেন। দুই জনকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে সীতাকুণ্ড থানায় দায়ের করা মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। গ্রেফতার দুই ছাত্র ঢাকার মোহাম্মদপুরের একটি মাদ্রাসার শিক্ষার্থী। পড়ালেখার পাশাপাশি তাদের একজন একটি ট্যুরিজম প্রতিষ্ঠানে ট্যুরিস্ট গাইড হিসেবে কাজ করছেন। গত ২৭ আগস্ট পর্যটক নিয়ে ওই শিক্ষার্থী চন্দ্রনাথ পাহাড়ে বেড়াতে যান। পরে সেখানে গিয়ে তিনি আজান দেন। ওই ঘটনার ছবি ফেসবুকে আপলোড করে উসকানিমূলক পোস্ট দেন। অপর শিক্ষার্থী ওই পোস্ট শেয়ার করেন। 

এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক প্রতিবাদ হয়। সীতাকুণ্ডের স্থানীয়রাও একে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের প্রচেষ্টা বলে মন্তব্য করে দায়ীদের গ্রেফতারের দাবি জানায়। এছাড়াও স্থানীয় রাজনৈতিক ও ধর্মীয় নেতৃবৃন্দ এবং জনপ্রতিনিধিগণ পর্যটনের জন্য বা পাহাড়ের সৌন্দর্য্য অবলোকনের জন্য সীতাকুণ্ড ইকোপার্ক ভ্রমণের পরামর্শ দেন এবং জাতীয় তীর্থের দাবিদার এই চন্দ্রনাথ মন্দিরসহ পাহাড়ের ধর্মীয় ভাবগম্ভীর্য বজায় রাখতে এখানে আসা সর্বসাধারণকে আহ্বান জানান। সেই সাথে বহিরাগত কেউ যদি স্থানীয়/অস্থানীয় কোনো কুচক্রীমহলের সাথে আতাত করে সীতাকুণ্ডে অস্থিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে চাই তবে তা স্থানীয় জনগণ জাতি-ধর্ম নির্বিশেষে কঠোরভাবে দমন করবেন বলে সাবধান করেন।

সীতাকুণ্ড থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ বলেন, হিন্দুদের তীর্থস্থান হিসেবে পরিচিত চন্দ্রনাথ পাহাড়ে গিয়ে আজান দেওয়ার ছবি তুলে ফেসবুকে উসকানিমূলক পোস্ট দেওয়ার ঘটনায় থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়। বাংলাদেশ হিন্দু পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি বাসুদেব রায় মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় ফেসবুকে পোস্ট দেওয়া শিক্ষার্থীসহ যারা ওই পোস্ট শেয়ার এবং তাতে কমেন্ট করেছেন তাদেরসহ অজ্ঞাতদের আসামি করা হয়। মামলাটি জেলা গোয়েন্দা পুলিশ তদন্ত করছে।

উল্লেখ্য, উপমহাদেশের সনাতনী (হিন্দু) সম্প্রদায়ের মানুষের কাছে তীর্থস্থান হিসেবে পরিচিত চন্দ্রনাথ পাহাড়ে ভারত-নেপালসহ বিশ্বের বিভিন্নস্থান থেকে প্রতিবছর লাখো মানুষ সমবেত হন। পূণ্যলাভের আশায় প্রতিবছর শিব চতুর্দশীতে পাহাড় চূড়ায় শিবমন্দিরে যান লাখো ধর্মপ্রাণ নরনারী।

Written by সীতাকুণ্ডবার্তা সম্পাদক

Related Articles

Leave a comment